1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেসক্লাবের ভার্চুয়াল সাধারণ সভা অনুিষ্ঠত : অভিষেকের প্রস্তুতি হাইকোর্টের নির্দেশে কেশবপুরে অবৈধ “রোমান ব্রিকস” ভেঙ্গে দিল প্রশাসন মাদ্রিদে হবিগঞ্জবাসীর মিলন মেলায় মুখরিত লাভপিয়েছ মণিরামপুরের জুড়ানপুর বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষককে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষরে বাঁধা মালিতে জাতিসংঘ শান্তিপদক পেলেন বাংলাদেশের ১৩৯ জন শান্তিরক্ষী কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা

মণিরামপুরে স্বামীর নির্যাতন ও হাতুড়ে ডাক্তারের ভূল চিকিৎসায় গৃহবধূর মৃত্যু

  • আপডেট: বুধবার, ১৮ মার্চ, ২০১৫
  • ৬২৯ দেখেছেন

যশোরের মণিরামপুর উপজেলার পলীতে স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে বিষপান, অতপর হাতুড়ে ডাক্তারের ভূল চিকিৎসায় এক সস্তানের জননী গৃহবধূর মৃত্যু ঘটেছে। ঘটনার পর লাশের ময়না তদন্ত সম্পন্নসহ স্বামী এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেলেও থানায় মামলা হয়েছে অপমৃত্যুর। অবশ্য একটি চক্রের মাধ্যমে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য জোর চেষ্টা চালানো হলেও তা এলাকাবাসীর মধ্যে ব্যাপক জানাজানি হয়।
জানাযায়, গত সোমবার সকালে উপজেলার উত্তরপাড়া গ্রামের তৈয়ব আলীর পুত্র অবিবুর রহমান পারিবারিক কলহের জের ধরে তার স্ত্রী হালিমা খাতুন (২০) কে বেদম মারপিট করে। এ ঘটনায় হালিমা স্বামীর বাড়িতেই বিষপান করলে পাশ্ববর্তী বোয়ালিয়া বাজারে গ্রাম্য ডাক্তার আজিজুর রহমানের কাছে নিয়ে যায় স্বামীসহ তার পরিবারের লোকজন। এরপর ওই গ্রাম্য ডাক্তার আশংকাজনক হালিমাকে হাসপাতালে পাঠানোর পরার্মশ না দিয়ে তার কথিত চেম্বারে রেখে নিজেই চিকিৎসা শুরু করেন বলে অভিযোগ। এদিন তার ভূল চিকিৎসায় কথিতDai ওই চেম্বারে দুপুরে ১টার দিকে হালিমার মৃত্যু হয়। পরে তার মৃত্যুর খবর জানতে পেরে স্বামী অবিবুর লাশ ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। এরপর মণিরামপুর থানা পুলিশ উক্ত ঘটনা জানার পর লাশ উদ্ধার করে যশোর মর্গে প্রেরণ করে। এ ব্যাপারে পুলিশের দাবী যেহেতু মুখে বিষ থাকা অবস্থায় তার মৃত্যু এবং লাশের ময়না তদন্ত করা হয়েছে সে কারনেই থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করা হয়। রিপোর্ট আসলে পরবর্তী আইনী পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে। গ্রাম্য ডাক্তার আজিজুর রহমানের দাবী সে হালিমাকে সামান্য চিকিৎসা দিয়েছে। তার কোন ভূল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু হয়নি। তবে নিহতের পরিবার এবং এলাকাবাসীর অভিযোগ হালিমার মৃত্যুর জন্য স্বামী অকিবুর রহমানসহ তার পরিবারের কয়েকজন এবং গ্রাম্য ডাক্তার আজিজুর সমান পরিমাণ দায়ী। পাশাপাশি অভিযোগ উঠেছে হালিমাকে মারপিটসহ ব্যাপক নির্যাতন চালানোর পর ঘটনা বেগতিক দেখে ও ভিন্ন খাতে নিতে তার মুখে বিষ ঢেলে দেয়া হয়েছে। জানাযায়, বিগত ৪ বছর পূর্বে একই উপজেলার ব্রাহ্মণডাঙ্গা গ্রামের শফিয়ার মোলার কণ্যা হালিমা খাতুনের বিয়ের পর তাদের একটি পুত্র সন্তানের জন্য হয়। স্থানীয়দের দাবী উক্ত ঘটনায় স্বামী অকিবুর ও গ্রাম্য ডাক্তার আজিজুরের বিরুদ্ধে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন ব্যবস্থা গ্রহন না হওয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022