1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
হাইকোর্টের নির্দেশে কেশবপুরে অবৈধ “রোমান ব্রিকস” ভেঙ্গে দিল প্রশাসন মাদ্রিদে হবিগঞ্জবাসীর মিলন মেলায় মুখরিত লাভপিয়েছ মণিরামপুরের জুড়ানপুর বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষককে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষরে বাঁধা মালিতে জাতিসংঘ শান্তিপদক পেলেন বাংলাদেশের ১৩৯ জন শান্তিরক্ষী কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল

মনিরামপুরে চাঁদা না দেয়ায় বিদ্যুত সংযোগ পাচ্ছে না ১৩ পরিবার

  • আপডেট: রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
  • ৬০৯ দেখেছেন
মনিরামপুরে চাঁদা না দেয়ায় বিদ্যুত সংযোগ পাচ্ছে না ১৩ পরিবার
মনিরামপুরে চাঁদা না দেয়ায় বিদ্যুত সংযোগ পাচ্ছে না ১৩ পরিবার

সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন। কিন্তু ৫০ হাজার টাকার কারণে বিদ্যুত  সংযোগ পাচ্ছেন না মনিরামপুরের হানুয়ার গ্রামের ১৩ টি পরিবার। স্থানীয় প্রভাবশালী ইসলাম ভুক্তভোগী পরিবারগুলোর কাছে চাঁদা দাবি করেন। শনিবার রাজগঞ্জ প্রেস কাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী রেজাউল ইসলাম বুলু। এ সময় ভুক্তভোগী বাকি ১২ টি পরিবারের প্রতিনিধিসহ ঝাঁপা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মাস্টার খোরশেদ আলম, ঝাঁপা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা আতিয়ার রহমান রহমান ইতি, আবুবক্কার ছিদ্দিক, হুমায়ূন কবির, আহম্মদ আলী, শহিদুল ইসলাম, সমাজসেবক ইকবাল হোসেন, আবুল কালাম আফাল, রবিউল ইসলাম, সোহেল রানা ও মেহেদী হাসান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, হানুয়ার মোড়লপাড়ার ১৩টি পরিবার স্বাধীনতার পর থেকে এ পর্যন্ত বিদ্যুত বিহীন অবস্থায় বসবাস করে আসছে। সম্প্রতি ওই পরিবারগুলোর আবেদনের প্রেক্ষিতে যশোর পল্লীবিদ্যুত  সমিতি-২ এর কর্তৃপক্ষ বিদ্যুত  সংযোগের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে। তারই আলোকে সম্প্রতি ইঞ্জিনিয়ারসহ বিদ্যুত  বিতরণ বিভাগের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ সরজমিনে এসে প্রধান সড়কের পাশ দিয়ে বিদ্যুত  সংযোগের পোল সরবরাহ করেন। এর এক পর্যায়ে জবেদ আলী গাজীর ছেলে ইসলামের নেতৃত্বে স্থানীয় কিছু লোকজন ওই পরিবারগুলোর কাছে ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। কিন্তু ভুক্তভোগী পরিবারগুলো টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ঘোলাপানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করে চক্রটি।  অভিযোগে বলা হয়, নিম্ন স্বাক্ষরকারী ১৩ টি পরিবার যাতে বিদ্যুত  সংযোগ না পায় সে জন্য তারা নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। এমনকি স্থানীয় কিছু কথিত দালালকে ম্যানেজ করে অর্থের বিনিময়ে আমাদের বিরুদ্ধে স্থানীয় কিছু পত্রিকায় বানোয়াট সংবাদ প্রকাশ করে। সংবাদে উল্লেখিত বিদ্যুতের পোল ব্যক্তি মালিকানাধীন জমিতে স্থাপন করা হয়েছে এমন প্রশ্নের উত্তরে তারা বলেন, মূলত টাকা না দেয়ার কারণেই এ ধরনের প্রপাগাণ্ডা ছড়াচ্ছে চক্রটি। এ ব্যাপারে পল্লীবিদ্যুত  সমিতি মনিরামপুর-২ এর সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার মুক্তিযোদ্ধা সালাউদ্দিন আল-বেতার বলেন সকল প্রক্রিয়া শেষ। এখন গ্রাহকরা মিটারের টাকা জমা দিলেই সংযোগ প্রদান করা হবে।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022