1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল আয়েবাপিসি’র সাধারন সম্পাদক বকুল খানকে যুক্তরাজ্যে বিভিন্ন সংগঠনের সংবর্ধনা সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ সচিবের প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহন মণিরামপুর জুয়েলারী সমিতি পক্ষ থেকে কাউন্সিলর বাবুলাল চৌধুরীকে সংবর্ধনা মণিরামপুরের শীর্ষ ব্যবসায়ী রতন পালের স্ব-পরিবারে ভারত পাড়ি! কিন্তু কেন ?

স্বামীর পরকীয়ার প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ

  • আপডেট: মঙ্গলবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৫
  • ৫৬৯ দেখেছেন
স্বামীর পরকীয়ার প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ

মণিরামপুরের পল্লীতে পরকীয়া প্রেমে বাঁধা দেয়ায় স্বামীর হাতে প্রাণ গেল ২ সন্তানের জননী শিরিনা পারভীন বিউটি (৩২) নামের এক গৃহবধূর। ওই গৃহবধূকে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার উপজেলার ত্রিপুরাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় মৃতের স্বামী মাদ্রাসা শিক আবু তাহেরসহ পরিবারের লোকজন বাড়ি-ঘর ছেড়ে পালিয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ পরদিন সকালে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। এ ব্যাপারে মৃতের ভাই আজিজুল ইসলাম বাদী হয়ে মণিরামপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশের প্রাথমিক ধারনা বিউটিকে হত্যা করা হয়েছে। মৃতের পিতা কেশবপুর উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের উকিল সরদার জানান, বছর ১৫ আগে মণিরামপুর উপজেলার চালুয়াহাটি ইউনিয়নের মৃত ইউসুফ আলীর ছেলের সাথে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে জামাই আবু তাহেরের চাহিদা মাফিক ও তাদের সামর্থ অনুযায়ী বিভিন্ন সময় নগদ টাকাসহ স্বর্ণালংকার দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে মৃত বিউটির কোল জুড়ে জন্ম নেয় দু’টি কন্যা সন্তান। রাবেয়া খাতুন (১০) পার্শ্ববর্তী রইস উদ্দীন মাদ্রাসার ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী ও রাফিজা খাতুনের বয়স সাড়ে ৩ বছর। মৃতের ভাই ওহিদুজ্জামান জানান, বিয়ের কয়েক বছর পর জানতে পারেন তার বোন জামাই আবু তাহেরের সাথে তারই বড় ভাই আবু তৈয়বের স্ত্রী আসমা খাতুনের অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে। আবু তাহের উপজেলার পাড়দিয়া মহিলা দাখিল মাদ্রাসার শিক। মৃত বিউটি তার স্বামী তাহেরকে ওই পথ থেকে ফেরানোর চেষ্টা করেছে। এ কারনে প্রায় তাকে মারধোর করা হতো। প্রায় মারপিটের কারনে মৃত বিউটি রোগাগ্রস্থ হয়ে পড়ে। ঘটনার দিন বোনের শ্বশুর বাড়ি থেকে মুঠো ফোনে জানানো হয় তার বোন রোগের কারনে মারা গেছে। খবর পেয়ে বোনের বাড়িতে গিয়ে দেখেন ঘরের বরান্দায় বোনের লাশ পড়ে আছে। এরপর বোনের গলার চতুর্পার্শ্বে রক্তজমাট দাগ ছাড়াও শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্তজমাট দাগ দেখে তাদের সন্দেহ হয় বিউটিকে পিটিয়ে ও গলায় রশি দিয়ে শ্বারোধ করে হত্যা করা হয়েছে। এসময় পুলিশকে খবর দিলে রাত হয়ে যাওয়ায় পরদিন সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ লাশের সুােরতহাল রিপোর্ট করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়ে দেয়। সুরোত হাল রিপোর্টকারী পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আয়েন উদ্দীন জানান, মৃতের গলার চারিপাশে রক্তজমাট দাগ, বামপায়ের হাটুর নীচে ৩টা রক্ত জমাট দাগ ছাড়াও নাভীর পাশে রক্তজমাট দাগ রয়েছে। তিনি প্রাথমিকভাবে ধারনা করছেন মৃতকে হত্যা করা হয়েছে। স্থানীয় মহিলা মেম্বর ফাতিমা খাতুন জানান, মৃতের প্রতিবেশীদের কাছ থেকে জানতে পেরেছেন ওই গৃহবধূকে পিটিয়ে ও শ্বারোধ করে হত্যা করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মৃতের ভাই আজিজুল ইসলাম বাদী হয়ে মণিরামপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। মণিরামপুর থানার সেকেন্ড অফিসার সিকদার মতিয়ার রহমান জানান, এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে অপমৃত্যু হয়েছে।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022