1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল আয়েবাপিসি’র সাধারন সম্পাদক বকুল খানকে যুক্তরাজ্যে বিভিন্ন সংগঠনের সংবর্ধনা সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ সচিবের প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহন মণিরামপুর জুয়েলারী সমিতি পক্ষ থেকে কাউন্সিলর বাবুলাল চৌধুরীকে সংবর্ধনা মণিরামপুরের শীর্ষ ব্যবসায়ী রতন পালের স্ব-পরিবারে ভারত পাড়ি! কিন্তু কেন ?

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী হিসেবে আবদুল লতিফ সিদ্দিকী তার মন্ত্রিত্বই চলে যাবে তা হয়তো কল্পনাও করেননি তিনি

  • আপডেট: বুধবার, ১ অক্টোবর, ২০১৪
  • ৩১৭ দেখেছেন

images

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী হিসেবে আবদুল লতিফ সিদ্দিকী যুক্তরাষ্ট্র থেকে মেক্সিকো গেলেন। ‘গ্লোবাল আইসিটি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড’ অ্যাওয়ার্ডটি নিজে থেকেই নেবেন। এজন্যই তার মেক্সিকো যাওয়া। সঙ্গে ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

কিন্তু এরই মধ্যে ঘটে গেছে অনেক কিছু। নিউইয়র্কে টাঙ্গাইল সমিতির অনুষ্ঠানে বিতর্কিত বক্তব্য দিয়েছেন। যার জের ধরে তার বিরুদ্ধে কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে মন্ত্রিসভা থেকে।

আর তাই মেক্সিকো পৌঁছেও ওই অ্যাওয়ার্ড নিজে থেকে নিতে পারলেন না লতিফ সিদ্দিকী। বিকল্প হিসেবে তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক মঞ্চে উঠলেন, অ্যাওয়ার্ড নিলেন, বক্তব্য দিলেন।

তথ্যপ্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে সমাজের অগ্রগতিতে অনন্য অবদানের জন্য ‘পাবলিক সেক্টর এক্সিলেন্স’ ক্যাটাগরিতে এ ‘গ্লোবাল আইসিটি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছে বাংলাদেশ।

অনেক সাধ করে মন্ত্রী হিসেবেই লতিফ সিদ্দিকী গিয়েছিলেন মেক্সিকো। যুক্তরাষ্ট্রে বসে দেওয়া বক্তৃতার কারণে যে তার মন্ত্রিত্বই চলে যাবে তা হয়তো কল্পনাও করেননি তিনি। এজন্য পূর্ণ প্রস্তুতি নিয়েই লতিফ সিদ্দিকী রওনা হন যুক্তরাষ্ট্রের পাশের দেশ মেক্সিকো।

মেক্সিকোতে পৌঁছাতে পৌঁছাতে তার বক্তৃতা নিয়ে দেশজুড়ে শুরু হয় ব্যাপক নিন্দা ও ক্ষোভ। এমনকি দলের নেতাদের কেউ কেউ তার এ বক্তৃতার বিরুদ্ধে অবস্থান নেন। হেফাজতে ইসলামের মতো কট্টরপন্থী সংগঠন লতিফ সিদ্দিকীকে মুরতাদ ঘোষণা করে মন্ত্রিসভা থেকে অপসারণ, গ্রেফতার ও তার ফাঁসির দাবি জানায়।

এ অবস্থায় লন্ডনে অবস্থানরত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে লতিফ সিদ্দিকীকে মন্ত্রিসভা থেকে অপসারণের সিদ্ধান্ত আসে। আর এতোসব তোলপাড়ের মধ্যে লতিফ সিদ্দিকীর মন্ত্রিত্বই যে চলে গেছে, তা তিনি জানলেন মেক্সিকোতে গিয়ে।

শেষ পর্যন্ত মেক্সিকোতে পৌঁছালেও সরকারের পক্ষ ওই অ্যাওয়ার্ডটি আর তার পক্ষে নেওয়া সম্ভব হয়নি। সহযাত্রী প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করেন।

এ থেকে একটি বিষয় স্পষ্ট হলো যে তিনি আর মন্ত্রিসভায় নেই। মন্ত্রী হিসেবে তিনি বহাল থাকলে তিনিই অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করতেন।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022