1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল আয়েবাপিসি’র সাধারন সম্পাদক বকুল খানকে যুক্তরাজ্যে বিভিন্ন সংগঠনের সংবর্ধনা সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ সচিবের প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহন মণিরামপুর জুয়েলারী সমিতি পক্ষ থেকে কাউন্সিলর বাবুলাল চৌধুরীকে সংবর্ধনা মণিরামপুরের শীর্ষ ব্যবসায়ী রতন পালের স্ব-পরিবারে ভারত পাড়ি! কিন্তু কেন ?

বর্ণাঢ্য আয়োজনে মণিরামপুরে পহেলা বৈশাখ পালিত # কিভাবে এলো পহেলা বৈশাখ ?

  • আপডেট: বৃহস্পতিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০১৬
  • ৩৫৪ দেখেছেন

IMG_20141130_163922মনিরুজ্জামান টিটো : বাঙ্গালীর প্রায় ৫’শ বছ‌রের ঐ‌তিহ্যের ধারা অব্যহত রাখ‌তে বর্ণাঢ্য আ‌য়োজ‌ন ও উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে ম‌ণিরামপু‌রে প‌হেলা বৈশাখ পা‌লিত হ‌য়ে‌ছে। বাংলা স‌নের ঐ‌তিহ্য ধ‌রে রাখ‌তে ছি‌লো বাঙ্গালী জীবন ও জী‌বিকার নানা প্রদর্শনী। উপ‌জেলা প্রশাস‌নের আ‌য়োজ‌নে দিন‌টি‌কে ঘি‌রে সূর্যোদ‌য়ের সা‌থে সাথে সংশপ্তক শিল্পী গোষ্ঠীর সঙ্গী‌তের মাধ্য‌মে বর্ষবরন, শিশু-‌কি‌শোরদের অংশ গ্রহ‌নে নাচ-গান ও দৃ‌ষ্টিনন্দন র-্যালী অনু‌ষ্ঠিত হয়। 01পৌরশহ‌রে অনু‌ষ্ঠিত উক্ত র-্যালী‌তে উপ‌জেলা চেয়ারম্যান আমজাদ ‌হো‌সেন লাভলু, উপ‌জেলা ‌নির্বাহী অ‌ফিসার কামরুল হাসান, পৌর মেয়র আলহাজ্ব কাজী মাহমুদুল হাসানসহ বি‌ভিন্ন রাজ‌নৈ‌তিক, সামা‌জিক ও সাংস্কৃ‌তিক ব্যা‌ক্তিত্ব-সংগঠন সমূহ অংশ গ্রহন ক‌রেন।

 04

প‌হেলা বৈশা‌খের ই‌তিহাস : ১৫৫৬ সালে শুরু হয়ে ছিলো বাংলা সনের প্রর্বতন। মোগল সম্রাট জালালউদ্দনি মোহাম্মদ আকবরের সিংহাসনে আরোহনের দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে তার রাজস্ব র্কমর্কতা আমির ফতেহউল্লাহ সিরাজী প্রথম ১৫৫৬ সালে উৎসব হিসেবে বৈশাখকে পালন করার নির্দেশ দেন। একই ধারাবাহিকতায় ১৬০৮ সালে মোগল সম্রাট জাহাঙ্গীরের নির্দেশে সুবেদার ইসলাম খাঁ চিশতি ঢাকাকে যখন রাজধানী হিসেবে গড়ে তোলেন, তখন থেকেই রাজস্ব আদায় ও ব্যবসা বাণিজ্যের হিসাব-নিকাশ শুরু করার জন্য বাংলা বছররে পহেলা বৈশাখকে উৎসবের দিন হিসেবে পালন শুরু করেন।

03ঐতিহাসিক তথ্যে আছে যে, সম্রাট আকব‌রের অনুকরণে সুবেদার ইসলাম চিশতি তাঁর বাসভব‌নের সামনে সব প্রজার শুভ কামনা করে মিষ্টি বিতরণ এবং বৈশাখ উৎসব পালন করতেন। সেখানে সরকারি সুবেদার হতে শুরু করে জমিদার, কৃষক ও ব্যবসায়ীরা উপস্থতি থাকত। প্রজারা খাজনা নিয়ে আসত সেই উপলক্ষে সেখানে খাজনা আদায় ও হিসাব-নিকাশের পাশাপাশি চলত মেলায় গান-বাজনা, গরু-মহি‌ষের লড়াই, কাবাডি খেলা ও হালখাতা অনুষ্ঠান।

IMG_1460633125438পরবর্তীতে ঢাকা শহরে মিটর্ফোডের নলগোলার ভাওয়াল রাজার কাচারিবাড়ি, বুড়িগঙ্গার তীরর্বতী ঢাকার নবাবদের আহসান মঞ্জিল, ফরাসগঞ্জ এর রূপলাল হাউস, পাটুয়াটুলীর জমিদার ওয়াইযের নীলকুঠির সামনে প্রতি পহলো বৈশাখে রাজ পুন্যাহ অনুষ্ঠান হতো। প্রজারা নতুন জামাকাপড় পরে জমিদারবাড়ি খাজনা দিতে আসত। জমিদাররা আংগীনায় নেমে এসে প্রজাদের সাথে কুশল বিনিময় করতেন। সবশেষে ভোজর্পব দিয়ে অনুষ্ঠান শেষ হতো।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022