1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল আয়েবাপিসি’র সাধারন সম্পাদক বকুল খানকে যুক্তরাজ্যে বিভিন্ন সংগঠনের সংবর্ধনা সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ সচিবের প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহন মণিরামপুর জুয়েলারী সমিতি পক্ষ থেকে কাউন্সিলর বাবুলাল চৌধুরীকে সংবর্ধনা মণিরামপুরের শীর্ষ ব্যবসায়ী রতন পালের স্ব-পরিবারে ভারত পাড়ি! কিন্তু কেন ?

পশ্চিমবঙ্গে ‘বাংলাদেশী অনুপ্রবেশকারী’ মুসলিমদের বিরুদ্ধে গ্রেফতার অভিযান

  • আপডেট: রবিবার, ১২ অক্টোবর, ২০১৪
  • ৪৩৫ দেখেছেন

20118

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে চলছে এখন ‘বাংলাদেশী অনুপ্রবেশকারী’দের বিরুদ্ধে গ্রেফতার অভিযান। শুক্রবার গ্রেফতার করা হয় ৩৮ জনকে। এরা সবাই মুসলিম। শনিবার আদালতে তোলা হয় তাদের। এদের মধ্যে দুজনকে রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। বাকিদের পাঠানো হয়েছে কারাগারে। এই ঘটনায় বাংলাদেশ সীমান্তলগ্ন পশ্চিমবঙ্গ জেলাগুলোতে বসবাসকারী ভারতীয় মুসলমানদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। শনিবার কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকা তাদের অনলাইন সংস্করণে এই খবর দিয়েছে।
আনন্দবাজার লিখেছে, বেআইনি অনুপ্রবেশকারী অভিযোগে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বীরভূমের বোলপুর, নদিয়ার ধানতলা এবং উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাট থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে ৩৮ জনকে। শুক্রবার গ্রেফতার হওয়া এদের সকলকেই শনিবার আদালতে তোলা হয়। এদের মধ্যে দু’জনকে পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। তাদের সঙ্গে খাগড়াগড় বিস্ফোরণ কাণ্ডের কোনো যোগ আছে কি না খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়, লোকসভা নির্বাচনের আগে থেকে বিজেপি-সহ অন্য দলগুলি পশ্চিমবঙ্গ-সহ সীমান্তবর্তী রাজ্যগুলিতে বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারী নিয়ে সরব ছিল। সম্প্রতি বর্ধমানের খাগড়াগড় বিস্ফোরণ কাণ্ডের পর গোয়েন্দাদের প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগ ওঠেছে দুষ্কৃতীদের সঙ্গে বাংলাদেশের জঙ্গি যোগ ছিল। এমনকী, ওই ঘটনায় নিহত শাকিল আহমেদ বছর সাতেক আগে অনুপ্রবেশকারী হিসেবেই ভারতে ঢুকেছিল বলে গোয়েন্দাদের ধারণা। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই নড়েচড়ে বসে রাজ্য পুলিশ প্রশাসন। সীমান্তবর্তী এলাকায় শুরু হয় তল্লাশি। বর্ধমানের মতো শহরে বিস্ফোরণ হওয়ায় সীমান্ত লাগোয়া জেলাগুলির পার্শ্ববর্তী এলাকাতেও অনুপ্রবেশ বিষয়ে তৎপর হয় পুলিশ।
আনন্দবাজার আরো লিখেছে, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে বোলপুরের দর্জিপাড়ায় একটি ক্লাবের সদস্যেরা ওই এলাকায় ভাড়া থাকা ব্যক্তিদের খোঁজখবর নিতে শুরু করে। সেই সময় তিন জনের দেওয়া তথ্যে ধোঁয়াশা দেখা দেওয়ায় পুলিশে খবর দেওয়া হয়। বোলপুর থানার পুলিশ ওই তিন জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। নথিপত্র দেখার পর দু’জনকে ছেড়ে দেওয়া হলেও এক জনকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, ওই ব্যক্তি ভারতীয় নাগরিকত্বের কোনও প্রমাণ তাদের দেখাতে পারেনি। ধৃত ওমর ফারুক মণ্ডলকে এ দিন বোলপুর আদালতে তোলা হলে বিচারক তার ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন।
পত্রিকাটি বলছে, অন্য দিকে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে রানাঘাট থানার পুলিশ হানা দেয় ধানতলা বাজার এলাকায়। সেখান থেকে গ্রেফতার করা হয় খালেদ মণ্ডল এবং রেহেনা মণ্ডল নামের এক দম্পতিকে। পুলিশ সূত্রে খবর, ওই দম্পতি জাল ভোটার কার্ড তৈরির সঙ্গে যুক্ত ছিল। পুলিশি অভিযানের সময় তাদের কাছ থেকে দু’টি জাল ভোটার কার্ড উদ্ধার হয়েছে। পুলিশের দাবি, ধৃত খালেদ বাংলাদেশের বাসিন্দা। অনুপ্রবেশকারী হিসেবেই সে ভারতে ঢুকেছিল বলে অভিযোগ। তবে তার স্ত্রী রেহেনা এ দেশের নাগরিক বলে পুলিশ জানিয়েছে। ধৃতদের এ দিন রানাঘাট মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক ৬ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন।
প্রতিবেদনে বলা হয়, উত্তর ২৪ পরগনা থেকেও শুক্রবার বেআইনি অনুপ্রবেশকারী অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে ৩৫ জনকে। পুলিশ সূত্রে খবর, স্বরূপনগর থেকে ৬ জন ও বসিরহাট শহর থেকে ২৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধৃতদের প্রত্যেকেই বাংলাদেশি বলে পুলিশের দাবি। তাদের এদিন বসিরহাট মহকুমা আদালতে তোলা হয়। ধৃতদের প্রত্যেককেই ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022