1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল আয়েবাপিসি’র সাধারন সম্পাদক বকুল খানকে যুক্তরাজ্যে বিভিন্ন সংগঠনের সংবর্ধনা সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ সচিবের প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহন মণিরামপুর জুয়েলারী সমিতি পক্ষ থেকে কাউন্সিলর বাবুলাল চৌধুরীকে সংবর্ধনা মণিরামপুরের শীর্ষ ব্যবসায়ী রতন পালের স্ব-পরিবারে ভারত পাড়ি! কিন্তু কেন ?

মণিরামপুরসহ যশোরে পণ্য উত্তোলন করেনি টিসিবি’র দুই তৃতীয়াংশ ডিলার, ক্রেতারা বঞ্চিত

  • আপডেট: বুধবার, ৮ জুন, ২০১৬
  • ৩০৬ দেখেছেন

মনিরুজ্জামান টিটো ঃ
মণিরামপুরসহ যশোরের বিভিন্ন উপজেলায় ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) এর নায্য মূল্যের দোকানে পণ্য সামগ্রী কেনাকাটায় ক্রেতাদের ভিড়ে জমে উঠেছে। টিসিবি’র পণ্য মূল্য বাজার দর থেকে কম হওয়ায় সাধারণ মানুষের মাঝে ব্যাপক সাড়া পড়েছে। তবে অধিকাংশ পরিবেশকরা পণ্য উত্তোলন না করায় বিঘ্নিত হচ্ছে সরকারের এ উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড। এবারও যশোরের দুই তৃতীয়াংশ পরিবেশক পণ্য উত্তোলন করেনি।
জানা যায়, দ্রব্য মূল্যের উর্দ্ধগতির এ সময়ে রোজার মাসে বর্তমান সরকার সাধারণ ক্রেতাদের কথা বিবেচনা করে সারাদেশে নায্য মূল্যে পণ্য সামগ্রী সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখতে দেশের প্রতিটি উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পরিবেশক নিয়োগ করে। এছাড়াও দেশের সব বড় বড় শহরে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ভ্রাম্যমাণ পদ্ধতিতে পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে। সেমোতাবেক যশোরের ৮ উপজেলা সর্বমোট ৮২ জন ব্যাক্তি/প্রতিষ্ঠানকে পরিবেশক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে রোববার পর্যন্ত সর্বমোট ২৬ জন পরিবেশক তাদের পণ্য উত্তোলন করেছেন বলে টিসিবি’র অফিস সূত্রে জানাগেছে। মণিরামপুরেও ১৮ জন পরিবেশকের মধে মাত্র ২ জর পরিবেশক পণ্য উত্তোলন করেছেন। বিগত কয়েক বছর ধরে এসকল পরিবেশকরা তাদের পণ্য উত্তোলন করা থেকে বিরত থাকেন। যে কারণে ব্যহত হচ্ছে সরকারের দ্রব্য মূল্য নিয়ন্ত্রন কার্যক্রম। কিছুদিন পূর্বেও টিসিবি পণ্য বিক্রির ব্যাপারে পরিবেশকরা হতাশায় ডুবে থাকলেও চলতি রমজানে টিসিবি পণ্যমূল্য বাজার মূল্যের থেকে পন্যভেদে ২৫-৫০ টাকা কম হওয়ায় টিসিবি’র পণ্যের দোকানে এখনই ক্রেতাদের ভীড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। মণিরামপুরের টিসিবি পরিবেশক মেসার্স লুৎফুন্নেচ্ছার স্বত্ত্বাধিকারী জানান, বর্তমানে টিসিবির পণ্য কেনা-কাটায় ক্রেতারা বেশ আগ্রহী। বাজার মুল্য থেকে কম মুল্যে মানসম্পন্ন পন্য সরবরাহ থাকায় এর চাহিদা বৃদ্ধি পেয়েছে। অন্যান্য পরিবেশকদের সাথে কথা হলে তারা অভিযোগ করে বলেন, খুলনা আঞ্চলিক অফিস থেকে টিসিবির পণ্য তুলতে গেলে ওই অফিসের এক শ্রেণীর অসাধু কর্মকর্তারা উৎকোচের বিনিময়ে ডিও লেটার ইস্যু করে থাকেন। অন্যথায় ডিও লেটারের জন্য দীর্ঘদিন ঘুরতে হয়। তারপরও অফিসের কর্মকর্তাদের ঘুষ না দিলে জোটে পচাঁ মালের বস্তা। এদিকে পণ্য পরিবহণ খরচও বৃদ্ধি পেয়েছে আগের তুলনায় অনেকাংশ। এসব কারণেই মূলত: পরিবেশকরা তাদের পণ্য উত্তোলন করা হতে বিরত রয়েছেন বলে এক পরিবশেক জানান।
খোঁজ নিয়ে জানাযায়, টিসিবি’র পরিবেশকদের মনিটরিং এর দায়িত্বে থাকা উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুল হাসান পরিবেশকদের প্রতিষ্ঠান পরিদর্শনসহ ক্রেতাদের খোঁজখবর নিচ্ছেন। সরকারের এ সকল উন্নয়নমূখী কর্মকান্ডের ফসল সাধারণ মানুষ যাতে ভোগ করতে পারে সেজন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ সংশ্লি¬ষ্ট সকলে সচেষ্ট থাকবেন বলে অনেকেই আশা প্রকাশ করলেও পরিবেশকরা সময়মতো পণ্য উত্তোলন না করলে তার সুফল পাবেনা ক্রেতা সাধারণ। টিসিবি’র খুলনা অঞ্চলের ডেপুটি সিনিয়ার এক্সিকিউটিভ রবিউল মোর্শেদ ওই অফিসের ঘুষ লেনদেনের কথা অস্বীকার করে বলেন, যে সকল পরিবেশকরা তাদের পণ্য উত্তোলন করেননি, ঈদের পর তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে সুপারিশ পাঠানো হবে।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022