1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল আয়েবাপিসি’র সাধারন সম্পাদক বকুল খানকে যুক্তরাজ্যে বিভিন্ন সংগঠনের সংবর্ধনা সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ সচিবের প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহন মণিরামপুর জুয়েলারী সমিতি পক্ষ থেকে কাউন্সিলর বাবুলাল চৌধুরীকে সংবর্ধনা মণিরামপুরের শীর্ষ ব্যবসায়ী রতন পালের স্ব-পরিবারে ভারত পাড়ি! কিন্তু কেন ?

মণিরামপুরে পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে শিবির ক্যাডারকে ছিনতাই : আটক তিন

  • আপডেট: বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬
  • ২৪৮ দেখেছেন

বিশেষ প্রতিনিধি ঃ
মণিরামপুরে পুলিশকে আহত করে শিবির ক্যাডারকে ছিনিয়ে নিয়েছে সহোদর আওয়ামীলীগ নেতা ও তার সমর্থকরা। এঘটনায় পুলিশের এক এএসআই আহত ও ৩ জনকে আটক করা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে মণিরামপুর থানার এএসআই অমিতের নেতৃত্বে একদল পুলিশ উপজেলার ডুমুরখালী বাজারের মোবাইল ও কম্পিউটারের দোকানদার শিবির ক্যাডার জিয়ারুল ইসলামকে আটক করে। এসময় তার সহোদর আওয়ামীগের কর্মী কামাল হোসেনের নেতৃত্বে তার সহযোগী বজলুর রহমান ও আকবার আলী আটক জিয়ারুলকে ছাড়িয়ে নিতে পুলিশের সাথে বাকবিতান্ডে লিপ্ত হয়। একপর্যায়ে পুলিশের সাথে তাদের ধস্তাধস্তির সুযোগে জিয়ারুল দৌড়ে পালিয়ে যায়। পুলিশ এসময় আসামী পলায়নে সহায়তা করার অপরাধে কামাল হোসেনকে আটক করার চেষ্টা করলে সে এবং আকবার হোসেনের নেতৃত্বে তাদের ৮/৯ জন সমর্থক পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে পালিয়ে যায়। এতে এএসআই অমিত আহত হন বলে একাধিক সূত্রে জানাযায়। এঘটনার পরপরই মণিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) শ্যামলাল নাথ অতিরিক্ত পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌছান। এঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ব্যবসায়ীসহ তিন জনকে আটক করেছে। আটককৃতরা হলো ডুমুরখালী গ্রামের আকবার আলীর ছেলে মুদি দোকানদার রফিকুল ইসলাম, সাবেক মেম্বার আব্দুল খালেকের ছেলে নাজমুল ইসলাম ও রবিউল ইসলাম। পুলিশের একটি সূত্র জানায়, গত ৭ সেপ্টেম্বর ডুমুরখালী গ্রামের মৃত হারেজ মোড়লের ছেলে জামায়াত নেতা আব্দুল হান্নানকে আটক করে পুলিশ। ওই ঘটনার তদন্তে বৃহস্পতিবার এএসআই অমিতের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ডুমুরখালী বাজারে যায়। পুলিশের উপস্থিতি দেখে একই গ্রামের ফজর আলীর ছেলে কম্পিউটার ও মোবাইল ফোনের দোকানদার শিবির ক্যাডার জিয়ারুল ইসলাম পালিয়ে যায়। মণিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার নাথ আসামী ছিনতাইয়ের ঘটনা অস্বীকার করে বলেন, পুলিশ একটি মামলা তদন্তের জন্য ঘটনাস্থলে পৌছিলে জিয়ারুল নামের এক শিবির ক্যাডার পুলিশকে দেখে দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশের গায়ে ধাক্কা খেয়েছে মাত্র।

 


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022