1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল আয়েবাপিসি’র সাধারন সম্পাদক বকুল খানকে যুক্তরাজ্যে বিভিন্ন সংগঠনের সংবর্ধনা সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ সচিবের প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহন মণিরামপুর জুয়েলারী সমিতি পক্ষ থেকে কাউন্সিলর বাবুলাল চৌধুরীকে সংবর্ধনা মণিরামপুরের শীর্ষ ব্যবসায়ী রতন পালের স্ব-পরিবারে ভারত পাড়ি! কিন্তু কেন ?

মনিরামপুরে সমবায় দিবস উপলক্ষ্যে ব্যপক চাঁদাবাজির অভিযোগ

  • আপডেট: শনিবার, ৫ নভেম্বর, ২০১৬
  • ২৪৮ দেখেছেন

বিশেষ প্রতিনিধি :
মণিরামপুরে সমবায় দিবস উপলক্ষ্যে ব্যপক চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠেছে। এ উপলক্ষ্যে বিভিন্ন সমবায়ী, মৎস্যজীবি সমিতি, সার্বিক উন্নয়ন সমিতি এবং সঞ্চয় ও ঋণদান সমিতি হতে মোটা অংকের চাঁদা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে।
সুত্র জানায়, মণিরামপুর উপজেলায় প্রায় সাড়ে চার শতাধিক সমবায় সমিতি সঞ্চয়, ঋণদান ও অন্যান্য কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। এবার ৪৫ তম জাতীয় সমবায় দিবস আয়োজনের লক্ষ্যে বিশাল খরচের কথা বলে সমিতি প্রতি দেড় থেকে তিন হাজার পর্যন্ত উৎকোচ আদায় করা হয়েছে বলে ব্যপক গুঞ্জন উঠেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সমিতির কর্মকর্তা জানান, সমবায় অফিসের চাহিদা মতো অর্থ প্রদান করা না হলে তাদেরকে বিভিন্ন ভাবে হয়রানী করা হয়ে থাকে। এবারের সমবায় দিবস উদযাপনের নামে এসব সমিতি হতে প্রায় চার লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। কপালীয় রাজবংশীপাড়া মৎস্যজীবী সমিতির কর্মকর্তা আনন্দ মোহন, কোনাকোলা মুর‌্যাল সমিতির কর্মকর্তা আকবার আলী, মনিরামপুর সার্বিক গ্রাম উন্নয়ন সমিতির শহিদুল ইসলাম, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক চন্ডিপুর সততা সমিতির জনৈক কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন এলাকার সমবায় সমিতির কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে জানাযায়, সমবায় দিবস পালনের খরচের কথা বলে উপজেলা সমবায় অফিসের সহকারী পরিদর্শক মোজাফ্ফর হোসেন সমিতি প্রতি দেড় থেকে তিন হাজার টাকা আদায় করেছেন। সহকারী পরিদর্শকের সাথে কথা হলে টাকা আদায়ের কথা স্বীকার করে তিনি জানান, সব কিছুই স্যারের (উপজেলা সমবায় অফিসার) নলেজে আছে, কিছু জানার প্রয়োজন হলে তার সাথে কথা বলুন। এব্যাপারে জানতে চাইলে উপজেলা সমবায় অফিসার হারুন আহম্মেদ শিকদার বলেন, সরকারী ভাবে অনুষ্ঠানের তেমন কোন খরচ পাওয়া যায়না, তাই সমবায়ীদের সাথে আলোচনার মাধ্যমে কিছু সহযোগীতা নেওয়া হয়েছে।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022