1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেসক্লাবের ভার্চুয়াল সাধারণ সভা অনুিষ্ঠত : অভিষেকের প্রস্তুতি হাইকোর্টের নির্দেশে কেশবপুরে অবৈধ “রোমান ব্রিকস” ভেঙ্গে দিল প্রশাসন মাদ্রিদে হবিগঞ্জবাসীর মিলন মেলায় মুখরিত লাভপিয়েছ মণিরামপুরের জুড়ানপুর বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষককে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষরে বাঁধা মালিতে জাতিসংঘ শান্তিপদক পেলেন বাংলাদেশের ১৩৯ জন শান্তিরক্ষী কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা

মণিরামপুরে মুক্তিযোদ্ধা যাচাই বাছাই সম্পন্ন, ১৮ জনের নাম বাতিল, যুক্ত হচ্ছে ৩২৪

  • আপডেট: সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭
  • ৩১৯ দেখেছেন

মনিরুজ্জামান টিটো ॥ 

মণিরামপুরে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা যাচাই বাছাইয়ের কাজ শেষ হয়েছে। গত ২৮ জানুয়ারী থেকে ১৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দীর্ঘ যাচাই বাছাই শেষে রোববার রাতে ফলাফল ঘোষনা করেছেন বাছাই কমিটি। কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এক রাজাকারসহ ১৮ জনের নাম ভাতার তালিকা হতে বাদ দিয়ে ভোগকৃত ভাতা ফেরত নেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। তাছাড়া মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছেন কিন্তু ভাতা পান না এমন ৩২৪ জনকে নতুন করে ভাতাভূক্ত করার সুপারিশও করেছেন কমিটি। মণিরামপুর উপজেলা প্রশাসনের ওয়েবসাইডে প্রাপ্ত ফলাফলে এসব তথ্য জানা গেছে।
মণিরামপুর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের নেতা আকরাম হোসেন ও তার গংদের করা গত বছরের ১৮ তারিখের আবেদনের ভিত্তিতে শহীদ মুক্তিযোদ্ধাসহ উপজেলার ১৯৬ জন মুক্তিযোদ্ধার তালিকা যাচাই বাছাই শুরু হয় চলতি মাসের ১২ তারিখ। মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছেন কিন্তু গত ৪৫ বছরেও ভাতা পাননি এমন ৩২৪ জনের অনলাইন আবেদনের ভিত্তিতে যাচাই বাছাই শুরু হয় গত মাসের ২৮ তারিখে। দীর্ঘ শুনানি শেষে রোববার রাতে উপজেলা প্রশাসনের ওয়েবসাইডে ফলাফল প্রকাশিত হয়। রাজাকার চিহ্নিত হওয়ায় উপজেলার পলাশী গ্রামের মৃত হাবিবুল্লার ছেলেু রইচ উদ্দীন আহমেদের ভাতা বন্ধ করে বিগত প্রাপ্ত সকল সুবিধা ফেরত নেয়ার সুপারিশ করেছেন বাচাই কমিটি। রইচ উদ্দীন দীর্ঘ এক বছর যাবৎ সরকারি ভাতা পাচ্ছেন বলে জানা গেছে। তাছাড়া শ্যামকুড় এলাকার মৃত শ্যামাপদ মিত্রের ছেলে ডা.মৃনাল কান্তি মিত্র,গবিন্দপুর গ্রামের মৃত হাজের গোলদারের ছেলে আয়ুব হোসেন, ওই গ্রামের মৃত জবেদ আলীর ছেলে সামছুল আলম,শেখপাড়া খানপুর গ্রামের মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে সৈয়দ নুরুল ইসলাম,কুলটিয়া এলাকার মৃত নগেন্দ্রনাথ বিশ্বাসের ছেলে পরিতোষ বিশ্বাস, ওই এলাকার ডা.ফজলুর রহমান,মনোহরপুরের মৃত পাঁচু খানের ছেলে কে এম আহাদ আলী,রোহিতা ইউনিয়নের এড়েন্দা গ্রামের মৃত কাজী মাসুম আহম্মদ আলীর ছেলে কাজী আব্দুল হামিদ প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা প্রমানিত না হওয়ায় তাদের ভাতা বাতিলের সুপারিশ করা হয়েছে।
এদিকে যাচাই বাছাইয়ের দিন শুনানিতে অংশ না নেওয়ায় ৯ মুক্তিযোদ্ধার ভাতা বন্ধের সুপারিশ করেছেন বাছাই কমিটি। শুনানিতে অনুপস্থিত মুক্তিযোদ্ধারা হলেন, উপজেলার দিঘীরপাড় গ্রামের মৃত আকবর আলীর ছেলে মোহাম্মদ আলী,ষোলখাদা গ্রামের মৃত হাজী মঙ্গল দফাদারের ছেলে মৃত ফেরাজুতুল্লাহ, খেদাপাড়া ৬নং ওয়ার্ড এলাকার মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে হানেফ আলী,শেখপাড়া খানপুর এলাকার মৃত শেখ আবু আয়ুবের ছেলে শেখ নাইমুজ্জামান,কুলটিয়া এলাকার মৃত যুক্তনীল মনির ছেলে সুব্রত বৈরাগী,বাজেকুলটিয়ার ঠাকুর দাস,মনোহরপুরের এসকে আহাদ,ওই এলাকার মনোয়ারা বেগম ও এড়েন্দা গ্রামের আব্দুল হামিদ।
মুক্তিযোদ্ধা যাচাই বাছাই কমিটির সদস্য সচিব ইউএনও মোহাম্মদ অতুল মন্ডল জানান,বাছাই কমিটির সিদ্ধান্তে কেউ ক্ষুব্ধ হলে ফলাফল প্রকাশের ১৫ দিনের মধ্যে তিনি উচ্চ আদালতে এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপীল করতে পারবেন।

 


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022