1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল আয়েবাপিসি’র সাধারন সম্পাদক বকুল খানকে যুক্তরাজ্যে বিভিন্ন সংগঠনের সংবর্ধনা সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ সচিবের প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহন মণিরামপুর জুয়েলারী সমিতি পক্ষ থেকে কাউন্সিলর বাবুলাল চৌধুরীকে সংবর্ধনা মণিরামপুরের শীর্ষ ব্যবসায়ী রতন পালের স্ব-পরিবারে ভারত পাড়ি! কিন্তু কেন ? আয়েবাপিসি’র অভিষেক উপলক্ষ্যে মতবিনিময় করতে সাধারন সম্পাদক বকুল খানের লন্ডন সফর মনিরামপুরে ১ কেজি গাঁজাসহ মহিলা কারবারি আটক

মনিরামপুরে এলিট মশার কামড়ে ২ জনের মৃত্যু ।। আক্রান্ত ১২ জন হাসপাতালে ভর্তি

  • আপডেট: বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট, ২০১৯
  • ৪২৩ দেখেছেন

বিশেষ প্রতিনিধি ।।
মনিরামপুরে সর্বত্রই এখন ডেঙ্গু আতংক বিরাজ করছে।গত দু’সপ্তাহে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মোট ১২ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগি ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে বর্তমান চিকিৎসাধিন রয়েছে চার জন।অন্যদিকে গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: শুভ্রা রানি দেবনাথ জানান, গত ১৫ দিনে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মোট ১২ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগি ভর্তি হন। এর মধ্যে উপজেলার ঝাপা গ্রামের আবদুস সবুর এবং আম্রুঝুটা গ্রামের আবদুল গফ্ফারের অবস্থা অবনতি হওয়ায় তাদেরকে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।
এর মধ্যে গত সপ্তাহে আবদুস সবুরের মৃত্যু হয়। অন্যদিকে আবদুল গফ্ফারের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় ১৯ আগষ্ট যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতাল থেকে স্বজনরা তাকে ঢাকা মগবাজার আদ্ব-দ্বীন হাসপাতালে ভর্তি করেন।
সেখানে চিকিৎসাধিন অবস্থায় বুধবার দুপুরে গফ্ফারের মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছেন তার মেয়ে নার্স পাপিয়া খাতুন। আবদুল গফ্ফারের ভাই স্কুল শিক্ষক মশিয়ার রহমান জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে জানাজা শেষে আবদুল গফ্ফারের মৃতদেহ আম্রুঝুটা গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে দফন করা হয়। আবদুল গফ্ফার ঐ গ্রামের মৃত আক্কাস আলী সানার ছেলে।সে নওয়াপাড়া আকিজ জুট মিলে শ্রমিকের কাজ করতেন।
এ দিকে ডেঙ্গু আক্রান্ত ১২ জনের মধ্যে বাকী ছয়জনকে চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পাঠানো হয়। বর্তমান স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছে চার জন।এরা হলেন উপজেলার গোপালপুর গ্রামের আকতার হোসেন, হানুয়ার গ্রামের অভিজিৎ রায়, কাশিপুর গ্রামের গৃহবধু সাবিনা ইয়াসমিন এবং যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর সদর দপ্তরে এক কর্মচারীর মেয়ে মঞ্জুয়ারা খাতুন।
তবে দিন দিন এদের অবস্থার উন্নতি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ডা: শুভ্রা রানী দেবনাথ। শুভ্রা রানী আরো জানান, বর্তমান ডেঙ্গু আতংক বিরাজ করায় প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষ আসছেন ডেঙ্গু পরীক্ষা করাতে।

এস এম মজনুর রহমান


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022