1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
হাইকোর্টের নির্দেশে কেশবপুরে অবৈধ “রোমান ব্রিকস” ভেঙ্গে দিল প্রশাসন মাদ্রিদে হবিগঞ্জবাসীর মিলন মেলায় মুখরিত লাভপিয়েছ মণিরামপুরের জুড়ানপুর বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষককে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষরে বাঁধা মালিতে জাতিসংঘ শান্তিপদক পেলেন বাংলাদেশের ১৩৯ জন শান্তিরক্ষী কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল

মালদ্বীপে অর্ধ লক্ষ বাংলাদেশীর মানবেতর জীবন যাপন : পাশে নেই দুতাবাস

  • আপডেট: সোমবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২০
  • ৩৮৭ দেখেছেন

কাইউম ইসলাম, মালদ্বীপ থেকে।।
ভারত মহাসাগরের দ্বীপ রাষ্ট্র মালদ্বীপ এশিয়ার অন্যতম টুরিস্ট দেশ হিসেবে পরিচিত। দেশটির মূল রেমিট্যান্স আসে টুরিজম ও ফিশিং প্রজেক্ট থেকে। আর এই দুইটা সেক্টরে বিশাল একটা জনগোষ্ঠীর কর্মস্থান। স্থানীয়দের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশের প্রায় এক লাখ রেমিট্যান্স যোদ্ধা মালদ্বীপ কর্মরত আছেন। এছাড়াও ইন্ডিয়ান, শ্রীলঙ্কান, ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপাইনের নাগরিক মালদ্বীপ উচ্চপর্যায়ের জব করেন। কিন্তু হঠাৎ করেই কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাবে স্থবির হয়ে পড়েছে মালদ্বীপের অর্থনীতি। দেশের অন-এরাইভ্যাল ফ্লাইট বন্দ রয়েছে। তবে প্রয়োজনে বিশেষ কিছু ফ্লাইট চালু আছে।
সমুদ্র বন্দর গুলতে সারিবেঁধে মাছ ধরার ট্রলার গুলো বেঁধে রাখা হয়েছে, এই মাছ ধরার কাজে সিংহভাগ শ্রমিক আমাদের বাংলাদেশের প্রবাসী রা। দেশের সব রিসোর্ট, গেস্ট হাউজ, হোটেল,মোটেল বন্ধ অনির্দিষ্টকালের জন্য। দেশের প্রশাসন ও স্বাস্থ্যসেবা ছাড়া সব কিছুই বন্দ রয়েছে। করোনা ভাইরাসের প্রভাব সবচেয়ে বেশি পড়েছে বাংলাদেশের প্রবাসীদের ওপরে।দেশটিতে অবস্থান করা প্রায় এক লাখ বাংদেশিদের মধ্যে চল্লিশ হাজার অনিবন্ধিত শ্রমিক রয়েছেন। তারা বর্তমানে কাজ হারিয়ে কষ্টে দিন পার করছেন।
এক রুমে দশ থে পনের জন্য গাদাগাদি করে থাকার ফলে চরম ঝুঁকিতে রয়েছেন তাঁরা। এরি মধ্যে এগিয়ে এসেছেন মালদ্বীপ সরকার ও পাশাপাশি বিভিন্ন কোম্পানি ও সেচ্ছাসেবী সংগঠন।
দেশটির রাজধানী মালে ও পার্শ্ববর্তী দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর হুলেহুমালে বিপুলসংখ্যক প্রবাসীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে তারা বেশিরভাগ দেশে ফিরে যেতে আগ্রহী, কিন্তু অভিযোগ রয়েছে বাংলাদেশ হাইকমিশন এই ব্যাপারে গা-ছাড়া ভাব দেখাচ্ছে। তাঁদের দেওয়া হটলাইনে কল দিয়ে ঠিক মতো সেবা পাওয়া যাচ্ছেনা।
তবে সব শেষে একটু আশার প্রদীপ হচ্ছে বাংলাদেশ থেকে গত ২১ এপ্রিল বাংলাদেশ সরকারের ত্রান-সাহায্য নিয়ে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর একটি জাহাজ এসেছিলো, একশো টনের বেশি খাদ্য ও ঔষধ সামগ্রী পৌঁছে দিয়ে ২৩ এপ্রিল নৌবাহিনীর জাহাজ টি বাংলাদেশের উদ্যেশ্যে মালদ্বীপ ছেড়ে গেছে।

এছাড়াও গত ১৯ এপ্রিল বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একটি বিশেষ ফ্লাইটে করে মালদ্বীপের একাত্তর জন্য শিক্ষার্থী মালদ্বীপ ফিরেছে,তাঁরা সবাই চট্রগ্রাম বিভিন্ন প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতেন, সেই ফ্লাইটে বাংলাদেশ থেকে দশ জনের একটি চিকিৎসক দলও আসে, সাথে প্র‍য়োজনীয় ঔষধ সরঞ্জাম বহন করে নিয়ে আসে বিমানটি।
পরেদিন ২০ এপ্রিল ফিরতি ফ্লাইটে ৭০ জন্য প্রবাসী শ্রমিক নিয়ে ফিরে যায় বিশেষ সেই ফ্লাইট।
মালদ্বীপে করোনাভাইরাসের প্রভাবে অনেক মালদ্বিভিয়ান এবং প্রবাসী তাদের থাকার জায়গা হারিয়েছে। যার ফলে মালদ্বীপ সরকার করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে ঐ হোমলেস অর্থাৎ যাদের থাকার জায়গা নেই এবং যারা একই জায়গায় গাদাগাদি করে থাকত তাদের অস্থায়ী থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে মালে এবং হুলহুমালে। এই রমজানে তাদের খাদ্য সরবরাহ দিয়ে সহযোগিতা করবে Maldives Association of Travel Agents and Tour Operations (MATATO), ও National Boating Association of Maldives (NBAM)


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022