ঢাকাশুক্রবার , ৮ মে ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মণিরামপুরে চাউল কান্ডের আসামী শহিদুল ইসলাম ডিবি পুলিশের হাতে আটক

Tito
মে ৮, ২০২০ ২:২৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মনিরুজ্জামান টিটো।।
মণিরামপুরে ৫৪৯ বস্তা সরকারী চাউল আটকের ঘটনার একমাস পর আসামী শহিদুল ইসলামকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার সন্ধ্যায় ইফতার করার সময় নিজ বাড়ি পৌর এলাকার তাহেরপুর গ্রাম থেকে তাকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ। সে ওই গ্রামের সোলাইমান মোড়লের ছেলে। তাকে আটকের পর যশোর ডিবি পুলিশের কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তবে মামলার অন্যতম আসামী জগদিশ দাসকে এখনও আটক করতে পারেনি পুলিশ।
জানা যায়, গত ৪ এপ্রিল বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে পুলিশ পৌর এলাকার বাঁধাঘাটা ভাইভাই রাইস মিল এন্ড চাতালে অভিযান চালায়। পরে উপজেলা চেয়ারম্যান নাজমা খানম ও উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তা আহসান উল্লাহ শরিফীর উপস্থিতিতে সরকারি কাবিখার ৫৪৯ বস্তা চাউল জব্দ করা হয়। এ সময় আটক করা হয় চাতাল মালিক আব্দুল্লাহ আল মামুন এবং ট্রাক চালক ফরিদ হাওলাদারকে। অবশ্য এসময় সেখানে চাতাল মালিক আব্দুল্লাহ আল মামুন নির্বাহী কর্মকর্তা, পুলিশ, সাংবাদিকসহ উপস্থিতিদের সামনে চাল পাচারের ঘটনায় খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসিএলএসডি) এবং প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা(পিআইও), চাল বেচাকেনার সিন্ডিকেটের সদস্য শহিদুল ইসলাম, জগদিশ দাসসহ জড়িত অনেক কুশিলবদের নাম প্রকাশ করে।
এঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে শুধুমাত্র চাতাল মালিক মামুন এবং ট্রাকচালক ফরিদের নামে মামলা করেন। পুলিশ ৫ এপ্রিল মামুন এবং ফরিদকে যশোরের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে হাজির করে পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে। শুনানী শেষে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আকরাম হোসেন জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ড শেষে ৭ এপ্রিল তাদেরকে আদালতে হাজির করে। সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট শম্পা বসুর আদালতে ১৬৪ ধারা মোতাবেক মামুন এবং ফরিদ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। মামলার প্রথম তদন্তকারী কর্মকর্তা ওসি(তদন্ত) শিকদার মতিয়ার রহমান জানান, আদলেতে দেয়া জবান বন্দিতে তারা উল্লেখ করেন সরকারি চাল পাচারের ঘটনায় তাদের সাথে আরো জড়িত ছিলেন সিন্ডিকেট নেতা শহিদুল ইসলাম, জগদিশ দাসসহ আরো দুইজন সরকারি কর্মকর্তা। পরবর্তিতে মামলাটি নিরপেক্ষভাবে তদন্তের জন্য ২১ এপ্রিল যশোর ডিবি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।
এরপর থেকেই শহিদুল ইসলাম ও জগদিশ পলাতক থাকে। একমাসেরও বেশী সময় পর শুক্রবার সন্ধ্যায় ডিবি পুলিশ শহিদুলকে নিজ বাড়ি থেকে আটক করলেও জগদিশ দাস এখনও পলাতক রয়েছে। তাকেও আটকের চেষ্টা চলছে বলে সূত্র জানিয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।