1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেসক্লাবের ভার্চুয়াল সাধারণ সভা অনুিষ্ঠত : অভিষেকের প্রস্তুতি হাইকোর্টের নির্দেশে কেশবপুরে অবৈধ “রোমান ব্রিকস” ভেঙ্গে দিল প্রশাসন মাদ্রিদে হবিগঞ্জবাসীর মিলন মেলায় মুখরিত লাভপিয়েছ মণিরামপুরের জুড়ানপুর বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষককে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষরে বাঁধা মালিতে জাতিসংঘ শান্তিপদক পেলেন বাংলাদেশের ১৩৯ জন শান্তিরক্ষী কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা

মণিরামপুরে নগদ সাহায্যের তালিকায় ২ ইউপি মেম্বরের মোবাইল নম্বরসহ অনিয়মের অভিযোগ

  • আপডেট: মঙ্গলবার, ৯ জুন, ২০২০
  • ১০৪০ দেখেছেন

বিশেষ প্রতিনিধি।।
মণিরামপুরো মহামারী করোনা পরিস্থিতিতে মানবিক সাহায্যের তালিকায় দরিদ্র ও কর্মহীনদের মোবাইল নম্বর না দিয়ে উপজেলার কাশিমনগর ইউনিয়নের ২ ইউপি মেম্বরসহ তাদের পরিচিতদের মোবাইল নম্বর দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি জানাজানি হলে দুই ইউপি মেম্বরের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ রয়েছে, শুধু কাশিমনগর ইউনিয়ন নয়, উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে তদন্ত করলে বেরিয়ে আসবে দরিদ্র কর্মহীনদের তালিকা নিয়ে অনিয়মের নানা কাহিনী। দুই মেম্বরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বললেন, উক্ত ঘটনায় তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
জানাযায়, বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশের কর্মহীন ও নিন্ম আয়ের ৫০ লাখ মানুষের জন্য আড়াই হাজার টাকা করে মানবিক সহায়তার ঘোষণা দেয় সরকার। যার মধ্যে মণিরামপুর উপজেলায় ১৭ ইউনিয়ন ও পৌর এলাকার ১২ হাজার দরিদ্র-কর্মহীনদের তালিকা করার কথা। এর মধ্যে উপজেলার কাশিমনগর ইউনিয়নে ৪২৮ জনের নাম রয়েছে। যার মধ্যে ১ নম্বর ওয়ার্ডে ৪৭ জন ও ২ নম্বর ওয়ার্ডের তালিকায় ৪৪ জনের নাম রয়েছে। তালিকার ৫৯ ও ৬৪ নম্বরে তারক দাস ও খোকন দাসের নাম রয়েছে। অভিযোগ রয়েছে, ৮১ নম্বর তালিকায় সুধির দাসের মোবাইল নম্বর না দিয়ে ইউপি সদস্য নিখিল দাস তার স্ত্রীর মোবাইল নম্বর ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়া, তালিকার ৫০, ৬৩, ৭৬ ও ৮৯ নম্বর তালিকার ব্যক্তিদের মোবাইল নম্বর পরিবর্তন করে মেম্বরের নিজস্ব লোকদের মোবাইল নম্বর দেয়া হয়েছে। ৬৩ নম্বর তালিকার পলাশ নামের এক ব্যক্তি অভিযোগ করে বলেন, নাম অন্তর্ভূক্তির জন্য ৫’শ টাকা দাবী করা হলে তাতে রাজী না হওয়ায় তার মোবাইল নম্বরের পরিবর্তে দাউদ নামের এক ব্যক্তির মোবাইল নম্বর বসিয়ে দেয়া হয়েছে। অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে, ইউপি মেম্বর নিখিল দাস বলেন, তালিকা করার সময় অতি দ্রæত কাজ করতে হয়েছে। যাদের ফোন নম্বর ছিল না উপকার করতে তাদের নামের পাশে আমার ও আমার স্ত্রীর মোবাইল নম্বর বসিয়ে দিয়েছি।
অপরদিকে, ইউপি মেম্বর শহিদুল ইসলাম দরিদ্র-কর্মহীনদের তালিকা নিয়ে একই ঘটনা ঘটিয়েছেন। ৩২ নম্বর তালিকায় শরিফুল ইসলাম নামের ব্যক্তির মোবাইল নম্বরের পরিবর্তে মেম্বর শহিদুল তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর দিয়েছেন। এছাড়াও, ১৮, ১৯, ২৪ ও ২৯ নম্বর তালিকার ব্যক্তিদের মোবাইল নম্বরের পরিবর্তে নিজের নিকটতমদের মোবাইল নম্বর ব্যবহার করেছেন। তিনি দাবী করেন, তালিকার ৩২ নম্বর ব্যক্তি শরিফুল নিজেই তার নম্বরের স্থানে আমার মোবাইল নম্বর বসিয়েছে, আমি কিছু জানি না। অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ইউপি মেম্বর শহিদুল ইসলাম বলেন, তালিকার বিষয়ে তাড়াতাড়ি কাজ করার সময় সমস্যা হয়েছে। জানতে চাইলে, কাশিমনগর ইউপি চেয়ারম্যান জিএম আহাদ আলী বলেন, তালিকা করার সময় সব মেম্বরদের স্বচ্ছতা বজায় রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়েছিল। যারা তালিকাভুক্ত হবেন তাদের মোবাইল নম্বর দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল। তারপরও মেম্বর নিখিল ও শহিদুল মোবাইল নম্বর পরিবর্তন করে যদি তালিকা করে থাকে তবে তা গুরুতর অন্যায় হয়েছে। জানতে চাইলে, দুই ইউপি মেম্বরের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয় নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহসান উল্লাহ শরিফী বলেন, দরিদ্রদের তালিকা নিয়ে অনিয়মের বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022