1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
হাইকোর্টের নির্দেশে কেশবপুরে অবৈধ “রোমান ব্রিকস” ভেঙ্গে দিল প্রশাসন মাদ্রিদে হবিগঞ্জবাসীর মিলন মেলায় মুখরিত লাভপিয়েছ মণিরামপুরের জুড়ানপুর বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষককে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষরে বাঁধা মালিতে জাতিসংঘ শান্তিপদক পেলেন বাংলাদেশের ১৩৯ জন শান্তিরক্ষী কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল

মনিরামপুরে মদনপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ দখল করে রাস্তা নির্মানের অভিযোগ

  • আপডেট: রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৫৮ দেখেছেন

মনিরামপুর প্রতিনিধি॥
যশোরের মনিরামপুরে মদনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের খেলারমঠ দকল করে রাস্তা নির্মানের অভিযোগ উঠেছে। হরিহরনগর ইউপি চেয়অরম্যান জহুরুল ইসলাম এবং ইউপি সদস্য মুনছুর রহমানের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ পাওয়া গেছে। আর এ ঘটনা জানাজানি হলে এলাকাবাসীর মধ্যে চরম অসন্তোষ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।
জানাযায়, মনিরামপুর উপজেলার হরিহরনগর ইউনিয়নের ২ নম্বর মদনপুর মৌজার ১৭৫২ দাগের মোট ৭০ শতক জমির উপর অবস্থিত মদনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং মদনপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়। এর মধ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জমি রয়েছে ৪০ শতক। অপরদিকে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জমি রয়েছে ৩০ শতক। মোট ৭০ শতক জমির দুই প্রান্তে দুইটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিদ্যমান রয়েছে। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দুইটির খেলার মাঠ রয়েছে একটি। কিন্তু অভিযোগ রয়েছে ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম এবং ইউপি সদস্য শামছুর রহমান জোগসাজসে পরিষদের এলজিএসপি প্রকল্পের আওতায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দুইটির মাঝদিয়ে অর্থাৎ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ দখল করে রাতারাতি ইটের রাস্তা নির্মান শুরু করেন। ফলে শিক্ষার্থীদের একমাত্র খেলার মাঠটি বন্ধ হয়ে যায়। ম্যনেজিং কমিটির সভাপতি শাহারাব হোসেন জানান, খেলার মাঠ দখল করে রাস্তা নির্মান হলে প্রতিনিয়ত শিক্ষার্থীরা দূর্ঘটনার শিকার হবে। ফলে বিষয়টি জানাজানি হলে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামছুন্নাহার উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দ জাকির হাসান এবং শিক্ষা অফিসার সেহেলী ফেরদৌস বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন। তার পরও কোন কর্নপাত না করে দ্রুত গতিতে রাস্তা নির্মানের কাজ চলতে থাকে। ফলে অভিভাবক, শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসীর মধ্যে চরম অসন্তোষ দেখা দেয়।
ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম এলজিএসপি প্রকল্পের আওতায় রাস্তা নির্মানের অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, ইউপি সদস্য শামছুর রহমান এলাকাবাসীর স্বার্থে মদনপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ইটবালু দিয়ে মাঠের মধ্য(প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জমি)দিয়ে রাস্তা নির্মান করছিল। একই দাবি করেন ইউপি সদস্য শামছুর রহমান।
রোববার সকালে উপজেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার শামিম হাসান এবং নাজমুল হাসান সরেজমিন গিয়ে অভিযোগের সত্যতা পান। এ সময় তারা ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলামের উপস্থিতিতে শিক্ষক, জনপ্রতিনিধিসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গদের নিয়ে বৈঠকে বসেন। উপজেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার শামিম হাসান জানান, আলাপ আলোচনা করে আপাতত: খেলার মাঠে রাস্তা নির্মান কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022