1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
হাইকোর্টের নির্দেশে কেশবপুরে অবৈধ “রোমান ব্রিকস” ভেঙ্গে দিল প্রশাসন মাদ্রিদে হবিগঞ্জবাসীর মিলন মেলায় মুখরিত লাভপিয়েছ মণিরামপুরের জুড়ানপুর বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষককে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষরে বাঁধা মালিতে জাতিসংঘ শান্তিপদক পেলেন বাংলাদেশের ১৩৯ জন শান্তিরক্ষী কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল

মনিরামপুরে যুবক জাহিদুল-আনিসুর নিখোঁজ দু’মাস পরিবারে চলছে কান্নার রোল

  • আপডেট: বুধবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৫
  • ৬২৩ দেখেছেন

জাহিদুল ইসলাম-আনিসুর রহমান দু’জনেই টগবগে যুবক তারা। প্রায় দুই মাস রহস্যজনক নিখোঁজ থাকায় তাদের পরিবারে চলছে শুধু কান্না আর কান্নার রোল। কিভাবে ছেলের সন্ধান পাবে এ অপোয় পরিবারের সদস্যরা প্রশাসনসহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজ-খবর করে চলেছেন। মনিরামপুরের খেদাপাড়া গ্রামের আব্দুল গফুর সরদারের ছেলে জাহিদুল ইসলাম। গত বছর অনার্স পাশ করে বাড়িতে সময় কাটছিল তার। আনিসুর রহামনও একই গ্রামের আজগর আলীর ছেলে। গত বছরের ২৩ ডিসেম্বর থেকে সন্ধান নেই তাদের। পরিবারের লোকজন দীর্ঘ খোঁজা-খুঁজির পর নিশ্চিত হন মানব পাচারকারীর একটি চক্রে প্রলোভনে পড়ে বাড়ির কাউকে না জানিয়ে পানি পথে মালায়েশিয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি ছাড়ে। জানা গেছে, একই গ্রামের মহির মেম্বর, তসির সরদারের ছেলে জসিম উদ্দীন, বেলতলার হযরত গাজীর ছেলে শরিফুল ইসলাম গংরা ফুসলিয়ে তাদের বাড়ি থেকে নিয়ে যায়। তাদেরকে উদ্ধারের জন্য পরিবারের লোক বিভিন্নভাবে যোগাযোগ করেও কোন সন্ধান পায়নি। নিরুপাই জাহিদুলের পিতা গফুর সরদার মঙ্গলবার রাতে মনিরামপুর থানায় সাধারন ডায়েরী করে। যার নং -৩৯১। গফুরের ছোট ভাই মোজাহার সরদার জানান, পাচার চক্রের খপ্পরে পড়ে পানি পথেই তাদেরকে হয়তো নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু তারা জীবিত আছে-নাকি মারা গেছে সে ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে ধারনা করা হচ্ছে জীবিত থাকলে গত দু’মাসের মধ্যে অন্তত একটি বার বাড়িতে মোবাইলে যোগাযোগ করতো। লোকমুখে পানি পথে দুর্ঘটনার গল্প শুনে পরিবারে এখন শুধু কান্না আর কান্নার রোল চলছে। নাওয়া-খাওয়া নেই পরিবার দুটিতে। কেবল জাহিদুল আনিসুর নয়- মনিরামপুরের অসংখ্য যুবক এভাবেই বাড়ি থেকে বের হয়ে অনেকের লাশটি ফিরেছে। আবার কারও লাশের সন্ধানও পায়নি। সরকার মানব পাচার প্রতিরোধে যথেষ্ট ভুমিকা রাখলেও এ অঞ্চলে কোন পাচারকারীর বিরুদ্ধে পদপে নেয়নি প্রশাসন।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022