1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল আয়েবাপিসি’র সাধারন সম্পাদক বকুল খানকে যুক্তরাজ্যে বিভিন্ন সংগঠনের সংবর্ধনা সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ সচিবের প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহন মণিরামপুর জুয়েলারী সমিতি পক্ষ থেকে কাউন্সিলর বাবুলাল চৌধুরীকে সংবর্ধনা মণিরামপুরের শীর্ষ ব্যবসায়ী রতন পালের স্ব-পরিবারে ভারত পাড়ি! কিন্তু কেন ?

মণিরামপুরে প্রেস স্টিকার লা‌গি‌য়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে অর্ধ-শতাধিক মোটরসাইকেল, এরা কারা ?

  • আপডেট: বৃহস্পতিবার, ১২ মে, ২০১৬
  • ২৭৩ দেখেছেন

বি‌শেষ প্র‌তি‌নি‌ধি:

‌প্রেস স্টিকার লাগা‌নো প্রায় অর্ধ শতাধিক মোটর সাইকেল দাপিয়ে বেড়াচ্ছে মণিরামপুরের রাস্তা গুলোতে। সকল শ্রেণির জনসাধারণের প্রশ্ন এরা কারা? ওই মোটর সাইকেল গুলো বাঁধাহীন ভাবে চলাচল করছে মণিরামপুর ছাড়াও পার্শ্ববর্তী উপজেলা গুলোতেও। তবে বেশীর ভাগ ক্ষেত্রে বেনাপোল-ঝিকরগাছা-নওয়াপাড়া মুখো এরা। বুধবার সন্ধ্যায় প্রেস স্টিকার লাগানো একটি মোটর সাইকেলসহ হিমু নামের এক যুবককে আটক করে মণিরামপুর থানা পুলিশ। মণিরামপুরের চালকিডাঙ্গায় বাড়ী আটক ওই যুবককের কাছ থেকে পুলিশ জব্দ করে গাঁজা। যশোর থেকে প্রকাশিত একটি পত্রিকার সাংবাদিক হিসেবে পরিচয়পত্র ও উদ্ধার হয় তার কাছ থেকে। সাংবাদিক যখন গাঁজাসহ আটক হয়-তখন আলোচনা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।
খোজখবর নিয়ে জানাগেছে নাম সর্বস্ব কয়েকটি দৈনিকের পরিচয়পত্র রয়েছে প্রেস স্টিকার লাগানো এসব চালকদের পকেটে। অনুসন্ধানে জানাগেছে ওইসব দৈনিক গুলো থেকে ৫’শ থেকে ১ হাজার টাকার বিনিময়ে নেয়া এসব পরিচয়পত্র ধারীদের অধিকাংশই মাদক বিক্রেতা এবং সেবনকারী। এক মাদ্রাসা শিক্ষকও রয়েছে আলোচিত মাদক সেবনকারী‌দের তা‌লিকায়। প্রতিদিন যাতায়াত রয়েছে তার ঝিকরগাছা ও বেনাপোলে। সম্প্রতি দেখাগেছে তার ব্যবহৃত মোটর সাইকেলটিতে প্রেস স্টিকার লাগিয়ে নিয়েছে। তার এক সহযোগি জানিয়েছে যশোর থেকে প্রকাশিত একটি অনিয়মিত পত্রিকার পরিচয়পত্র সংগ্রহ করে নিয়েছে ২’হাজার খরচা করে। মণিরামপুর বাজারের এক কোচিং শিক্ষকও তার মোটর সাইকেলে প্রেস স্টিকার লাগিয়ে নিয়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে বাঁধাহীন ভাবে। খেদাপাড়া, জয়পুর, ইত্তাসহ বেশ কয়েকটি এলাকার চিহ্নিত মাদক বিক্রেতারাও বর্তমানে বাধাহীন ভাবে চলতে মোটর সাইকেলে প্রেস, সংবাদপত্র বা সাংবাদিক স্টিকার লাগিয়ে নিয়েছে। প্রেস স্টিকার লা‌গি‌য়ে, সা‌থে দৃশ্যমান ক্যামেরা কা‌ধে ঝু‌লি‌য়ে চা‌লি‌য়ে বেড়া‌চ্ছে নস্বর বিহীন মটরনাই‌কেলগু‌লো। পুলিশ প্রশাসনের নজর ফাঁকি দিতে অভিনব এসব কৌশল ব্যবহার করায় সাধারণ জনগনের নিকট রাস্তা-ঘাটে প্রশ্ন বিদ্ধ হচ্ছেন স্থানীয় প্রকৃত সাংবাদিকরা। শুধু তাইনা-এমন প্রেক্ষাপটে বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছেন খোদ থানা পুলিশও।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022