1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল আয়েবাপিসি’র সাধারন সম্পাদক বকুল খানকে যুক্তরাজ্যে বিভিন্ন সংগঠনের সংবর্ধনা সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ সচিবের প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহন মণিরামপুর জুয়েলারী সমিতি পক্ষ থেকে কাউন্সিলর বাবুলাল চৌধুরীকে সংবর্ধনা মণিরামপুরের শীর্ষ ব্যবসায়ী রতন পালের স্ব-পরিবারে ভারত পাড়ি! কিন্তু কেন ?

৩১ অক্টোবর মণিরামপুরের খেদাপাড়া ইউনিয়নের গালদা খড়িঞ্চি কেন্দ্রে পুন:ভোট গ্রহন

  • আপডেট: বুধবার, ৫ অক্টোবর, ২০১৬
  • ২৮৯ দেখেছেন

বিশেষ প্রতিনিধি :
মনিরামপুরের খেদাপাড়া ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের সাধারন সদস্য নির্বাচনে গালদা খড়িঞ্চি সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পুন:ভোট গ্রহনের দিন ধার্য্য করেছে নির্বাচন কমিশন। আগামী ৩১ অক্টোবর পূর্বের প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীদের মধ্যে পূর্বের প্রতীকেই সাধারন সদস্য নির্বাচনের লক্ষ্যে সকাল ৮ টা হতে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত টানা ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে। মণিরামপুর উপজেলা নির্বাচন অফিসার আল এমরান স্বাক্ষরিক এক গণ বিজ্ঞপ্তীতে জানা যায়, গত ২২ মার্চ অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ওই কেন্দ্রে ভোট গণনার পর এক অভিযোগে ফলাফলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে নির্বাচন কমিশন। একপর্যায়ে ৯ জুন নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের ০২৬.৪১.০০৪.১৬ (অংশ)-১৯১ নং পত্রের স্মারকে পুনরায় ভোট গ্রহনের নিমিত্তে উক্ত ফলাফল বাতিল করার নিদের্শ দেয়। এরপর গত ২৫ সেপ্টেম্বর নির্বাচন কমিশন সচিবালয় ০৭৯.৪১.০৫৭.১৬-৪৮২ নং স্মারকে পুনরায় ভোট গ্রহনের নির্দেশ দেয়। ওই নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকারী প্রিজাইডিং অফিসার কর্তৃক দু’প্রার্থীর দু’রকম ফলাফল সীট প্রদান করায় অভিযোগের ভিত্তি উক্ত ফলাফল বাতিল করা হয়। উল্লেখ্য ওই নির্বাচনে হাবিবুর রহমান (তালা মার্কা), মাহাবুবুর রহমান লাভলু (মোরগ মার্কা), শহিদুল ইসলাম (আপেল মার্কা) ও আব্দুল জব্বার (টিউবওয়েল মার্কা) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এতে হাবিবুর রহমান ৪১৭ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে বিজয়ী হয় বলে প্রিজাইডিং অফিসার প্রনয় কুমার বিশ্বাস ঘোষনা করেন। সেমোতাবেক উপজেলা নির্বাচন অফিসে ফলাফল সীটও দাখিল করেন তিনি। এর কিছুদিন পর একই প্রিজাইডিং অফিসার স্বাক্ষরিক অপর একটি ফলাফল সীট নিয়ে অভিযোগ করেন ওই ফলাফল সীটের তৃতীয় অবস্থানে থাকা অপর প্রার্থী আব্দুল জব্বার। প্রিজাইডিং অফিসার কর্তৃক দাখিলকৃত ফলাফল সীটে আব্দুল জব্বার ২৪৯ ভোট পেলেও অভিযোগের সাথে দাখিলকৃত সীটে ৪০১ ভোট পেয়ে তিনি নিজেকে বিজয়ী দাবি করেন। এব্যাপারে প্রিজাইডিং অফিসারের বিরুদ্ধে একাধিক কারণ দর্শানোর নোটিশ করে নির্বাচন কমিশন। ওই নির্বাচনের প্রিজাইডিং অফিসার প্রনয় কুমার বিশ্বাসের বিরুদ্ধে অর্থের বিনিময়ে একাধিক ফলাফল সীটে স্বাক্ষরের গুঞ্জন শোনা গেছে। এব্যাপারে তার কাছে জানতে চাইলে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022