1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা মণিরামপুরে সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা বজলুর রহমানের ইন্তেকাল আয়েবাপিসি’র সাধারন সম্পাদক বকুল খানকে যুক্তরাজ্যে বিভিন্ন সংগঠনের সংবর্ধনা সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ সচিবের প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহন মণিরামপুর জুয়েলারী সমিতি পক্ষ থেকে কাউন্সিলর বাবুলাল চৌধুরীকে সংবর্ধনা মণিরামপুরের শীর্ষ ব্যবসায়ী রতন পালের স্ব-পরিবারে ভারত পাড়ি! কিন্তু কেন ? আয়েবাপিসি’র অভিষেক উপলক্ষ্যে মতবিনিময় করতে সাধারন সম্পাদক বকুল খানের লন্ডন সফর মনিরামপুরে ১ কেজি গাঁজাসহ মহিলা কারবারি আটক

মণিরামপুরে ট্রাক প্রতীকের জনপ্রিয়তা ঠেকাতে একের পর এক অফিস ভাংচুর, ২ হামলাকারীকে গণধোলাই

  • আপডেট: বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৮
  • ৩৪৫ দেখেছেন

বিশেষ প্রতিনিধি ।।
যশোর-৫ (মণিরামপুর) আসনের আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ্ব কামরুল হাসান বারীর ট্রাক মার্কার নির্বাচনী অফিসে আবারো হামলা ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার রাত ৮ টার দিকে উপজেলার ভান্ডারী মোড়ে এঘটনা ঘটে। এসময় স্থানীয়রা হামলাকারীদের দুই দূবৃত্তকে ধরে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে।
প্রার্থীর ভাইপো শিমুল জানান, মঙ্গলবার রাতে তিনি কামরুল হাসান বারীর নির্বাচনী অফিসে বসে ছিলেন। এসময় চারটি মোটরসাইকেলে ৭/৮ জন মুখোশধারী ব্যাক্তি লোহার রড নিয়ে অফিসে ঢুকে পোষ্টার ছিড়ে ফেলে এবং রড দিয়ে কয়েকটি চেয়ার ভাংচুর করে। পরে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে হামলাকারীদের মধ্যে ইকবাল ও কেসমত নামে দুই জনকে ধরে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। বাকিরা দৌড়ে পালিয়ে যায়।
শিমুলের অভিযোগ, মঙ্গলবার উপজেলার মুক্তারপুরে ট্রাক মার্কার অফিসে ভাংচুর চালায় দুর্বৃত্তরা। এছাড়া ওইদিন দুপুরে খেদাপাড়া বাজারে প্রচার মাইকের মেমরিকার্ড কেড়ে নেওয়াসহ ষোলখাদা বাজারে প্রচার মাইক ভাংচুর করেছে দূর্বৃত্তরা। এ কারণে বুধবার সকাল থেকে মাইকে ট্রাক মার্কার প্রচার কাজ বন্ধ রাখা হয়েছে।তিনি বলেন, ট্রাক প্রতীকের দিন দিন জনপ্রিয়তায় টনক নড়েছে প্রতিপক্ষের। যে কারনে তারা একের পর এক নির্বাচনী অফিসে হামলা ভাংচুর চালিয়ে ত্রাস কায়েম করতে চাইছে। তবে জনতা প্রতিবাদী হয়ে উঠেছে।
খেদাপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এএসআই জয়ন্ত কুমার বলেন , স্থানীয় লোকজন দুইজনকে ভান্ডারী মোড়ে আটকে রেখেছিল। খবর পেয়ে আমরা সেখানে গিয়ে তাদের উদ্ধার করি।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রার্থী কামরুল হাসান বারী জানান, আমার নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করা হয়েছে, আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হচ্ছে, তারপরও আমার কর্মীদের নামে থানায় উল্টো অভিযোগ করা হচ্ছে। কারা হামলা করছে এমন প্রশ্নের জবাবে প্রার্থী বলেন, বিএনপি-জামায়াতের তো সাহস নেই, যাদের সাহস আছে তারাই করছে।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022