1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেসক্লাবের ভার্চুয়াল সাধারণ সভা অনুিষ্ঠত : অভিষেকের প্রস্তুতি হাইকোর্টের নির্দেশে কেশবপুরে অবৈধ “রোমান ব্রিকস” ভেঙ্গে দিল প্রশাসন মাদ্রিদে হবিগঞ্জবাসীর মিলন মেলায় মুখরিত লাভপিয়েছ মণিরামপুরের জুড়ানপুর বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষককে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষরে বাঁধা মালিতে জাতিসংঘ শান্তিপদক পেলেন বাংলাদেশের ১৩৯ জন শান্তিরক্ষী কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা

মণিরামপুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ : আহত-৯

  • আপডেট: শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
  • ৬০০ দেখেছেন
মণিরামপুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ : আহত-৯
মণিরামপুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ : আহত-৯

মণিরামপুরে পুকুরের মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে অংশীদারদের দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে মহিলা ও বৃদ্ধসহ অন্তত ৯ জন আহত হয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার বাগডাঙ্গা বাজারে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে ৩ জনকে আশংকাজনক অবস্থায় রাতেই মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সংবাদ পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এঘটনায় এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
আহতরা হলেন, উপজেলার বাগডাঙ্গা বাজারের স্থানীয় চা দোকানদার ইউনুস মোড়ল (৫০),দহকলা গ্রামের তফিদুলের স্ত্রী লতিফা বেগম (৩০), একই গ্রামের মৃত ফজল বিশ্বাসের ছেলে আ.রশিদ কবিরাজ (৭০), ইউনুস আলীর অপর তিন ভাই আনার মোড়ল (৩৭),শরিফুল ইসলাম (৩৫) ও শহিদুল ইসলাম (৩০), মৃত গোলাম আলী মোড়লের ছেলে মকছেদ মোড়ল (৬০),আ.মজিদ মোড়লের ছেলে তফিদুল (৪০) এবং মৃত ফজল বিশ্বাসের ছেলে আমজেদ (৫০)। আহতদের মধ্যে ইউনুস আলী,লতিফা বেগম ও আ.রশিদ মণিরামপুর হাসপাতালে চিকিতসাধীন রয়েছেন। স্থানীয় সূত্র জানায়, সম্প্রতি ভারী বর্ষনে বাহাদুরপুর গ্রামের কৃষ্ণ পদ মন্ডলের ঘেরের মাছ ভেসে গিয়ে আশপাশের কয়েকটি পুকুরে গিয়ে পড়ে। তেমনই একটি পুকুরের শরিক হলেন বাকডাঙ্গা-দহকুলা গ্রামের মৃত ফজল বিশ্বাস,মৃত মাহাতাব বিশ্বাস,মাওলানা নুরুল বিশ্বাস ও আ.রশিদ বিশ্বাস। কৃষ্ণ মন্ডলের ক্ষতি কিছুটা লাঘব কল্পে স্থানীয় লোকজন বসে সিদ্ধান্ত নেয়,ঘেরের পাড় উপরে ভেসে ওঠার আগে কেউ পুকুর থেকে মাছ ধরতে পারবে না। অন্য তিন শরিকরা সিদ্ধান্তে অটুট থাকলেও সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করেন মৃত ফজল বিশ্বাসের ছেলে আ.রশিদ কবিরাজ ও তার ছেলেরা। তারা বৃহস্পতিবার পুকুরে জাল ফেলে মাছ ধরে। এতে অপর শরিকরা বাঁধা দেওয়ায় দিবাগত রাতে বাকডাঙ্গা বাজারে আ.রশিদ কবিরাজের দুই ছেলে হাফিজুর ও হারুন এবং হাফিজুরের শ্যালোক মাছনা গ্রামের হোসেন আলী তফিদুলকে পিটাতে থাকে। তাদের হামলা থেকে বাঁচতে তফিদুল পাশের চা দোকানদার ইউনুসের দোকানে আশ্রয় নেয়। তখন হাফিজুরসহ অন্যরা সেখানেও তফিদুলের উপরে হামলা করে। এতে ইউনুস বাঁধা দেওয়ায় হামলাকারীরা ইউনুসকে পিটিয়ে মাথা ফাঁটিয়ে দেয়। এর পরপরই সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে দু’গ্রুপের অন্তত ৯ জন আহত হন। মণিরামপুর থানার ওসি তাহেরুল ইসলাম জানান,‘বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি ভাল। তবে এঘটনায় এখনো কোন মামলা হয়নি। 


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022