1. admin@manirampurprotidin.com : admin :
  2. hnurul146@gmail.com : nurul :
  3. titonews24@gmail.com : Tito :
শিরোনাম :
অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেসক্লাবের ভার্চুয়াল সাধারণ সভা অনুিষ্ঠত : অভিষেকের প্রস্তুতি হাইকোর্টের নির্দেশে কেশবপুরে অবৈধ “রোমান ব্রিকস” ভেঙ্গে দিল প্রশাসন মাদ্রিদে হবিগঞ্জবাসীর মিলন মেলায় মুখরিত লাভপিয়েছ মণিরামপুরের জুড়ানপুর বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষককে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষরে বাঁধা মালিতে জাতিসংঘ শান্তিপদক পেলেন বাংলাদেশের ১৩৯ জন শান্তিরক্ষী কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যানকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মণিরামপুরে সাংবাদিক পুত্র মাহির গোল্ডেন জিপিএ-৫ লাভ মণিরামপুরে ইকবালকে কমিটি গঠন কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ : রোহিতার আহ্বায়ক বহিষ্কার মণিরামপুরে ২দিন ব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার শুভ উদ্বোধন মণিরামপুরে গ্রাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় স্কুল ছাত্রীর হাতে পঁচন ।। আদালতে মামলা

শ্বশুর বাড়ি এলাকায় জামাইকে আটকে হাতুড়ি পেটা : তিন দিন পর উদ্ধার

  • আপডেট: বৃহস্পতিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
  • ৬০৫ দেখেছেন
মণিরামপুরে ছিনতাইকারী সন্দেহে তিনজনকে গণধোলাই
মণিরামপুরে ছিনতাইকারী সন্দেহে তিনজনকে গণধোলাই

যশোরের মণিরামপুরে শ্বশুর বাড়ি বেড়াতে এসে এলাকার দুই যুবকের হাতে তিন দিন বন্দি থেকে শারীরিক নির্যাতনের স্বীকার হয়েছেন ঢাকা নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁও ৮ নং ওয়ার্ড মোকরাপাড়া এলাকার জামাল ইবনে হানেফ (৩০)। মূলত আর্থিক লেনদেনকে কেন্দ্র করে ওই দুই যুবক হানেফকে গৃহে আটকে রেখে হাতুড়ি পেটা করেছে। বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে হানেফকে উদ্ধার করে। এসময় অভিযুক্ত দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। আটক দু’জন উপজেলার বেগারীতলার মৃত নূর আলীর ছেলে সুমন (১৮) ও আ.আজিজ খানের ছেলে জাইদুল (১৯)। হানেফ সোনারগাঁও মোকরাপাড়া এলাকার তাজউদ্দিনের ছেলে। জানাযায়, তিন বছর আগে সে মণিরামপুর উপজেলার বেগারীতলার তাইজেলের মেয়ে লতা (২০) কে বিয়ে করে। গত ৫ মাস আগে আমের মৌসুমে ফলের ব্যবসা করার উদ্দেশ্যে ওই এলাকার দুই যুবক সুমন ও জাইদুল হানেফকে এক লক্ষ টাকা দেয়। টাকা নেয়ার সময় কথা ছিল তিন জনেই মিলে মণিরামপুর থেকে আম কিনে নিয়ে ঢাকায় বিক্রি করবে আর যা লাভ হবে তা সমান ভাগ করে তিন জনে নেবে। কিন্তু ব্যবসা শুরুর মাত্র এক মাসের মাথায় ক্রয়কৃত আম পঁচে যাওয়ায় তারা লোকসানের মুখে পড়ে এবং সব পুঁজি শেষ হয়ে যায়। ব্যবসা শেষ হওয়ায় সুমন ও জাইদুল হানেফকে এক লাখ টাকা ফেরত দেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করে এবং তিন মাস আগে হানেফ বেগারীতলায় শ্বশুর বাড়ি বেড়াতে আসলে ওই দুই যুবক তাকে চেপে ধরে এক মাসের মধ্যে টাকা শোধ দিতে হবে বলে স্টাম্পে সই করে নেয়।একই সাথে ওই স্টাম্পে সইহ নেয় লতা ও তার পিতা তাইজেল ইসলামের। কিন্তু শর্ত মতে টাকা শোধ করতে ব্যর্থ হয় হানেফ। এরই মধ্যে অসুস্থ স্ত্রী লতাকে দেখতে ও দেনার ব্যাপারে কথা বলতে হানেফ গত মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকা থেকে শ্বশুর রাড়ি বেগারীতলায় আসে। বাজারে পৌঁছানো মাত্র সুমন ও জাইদুলের সাথে দেখা হলে তারা হানেফকে ডেকে সুমনের বাড়িতে নিয়ে যায়। এরপর ঘরে আটকে রেখে দুই হাত পিছনে বেধে দু’দিন ধরে লাঠি ও হাতুড়ি দিয়ে পেটায়। বৃহস্পতিবার সকালে খবর পেয়ে থানা পুলিশ সুমনের বাড়ি থেকে হানেফকে উদ্ধারসহ সুমন ও জাইদুলকে আটক করে। হানেফকে আটক রেখে মারধরের কথা স্বীকার করে আটক জাইদুল জানায়, চলতি বছরের ১৯ মে স্টাম্প করে তারা আমের ব্যবসার জন্য তাকে এক লাখ টাকা দিয়েছে। স্টাম্পে লাভসহ মূল টাকা ফেরত দেয়ার কথা লেখা আছে। কিন্তু হানেফ টাকা ফেরত না দিয়ে প্রতারনার আশ্রয় নিয়েছে বলেও জাইদুল জানায়। পুলিশ জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সত্য হলে আটক দু’যুবকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


এ খবর টি সোস্যাল মিডিয়াতে এ পোষ্ট করুন

এ জাতীয় আরও খবর




© All rights reserved © 2013-2022